রবিবার, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাম্প্রতিক লেখাসমূহ

বাড়িতে মশার উপদ্রব কমাতে লাগাতে পারেন এই সব গাছ – All these trees can be planted to reduce mosquito infestation at home

বর্ষাকাল আসতেই বাড়ছে মশার উপদ্রব। ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়ার ভয় নিশ্চিন্তে থাকতে দিচ্ছে না। এক দিকে মশারি না টাঙিয়ে ঘুমনোর কথা ভাবাও যায় না, অন্য দিকে আবার রাতেও গরমে ঘেমে নেয়ে এককার। সব মিলিয়ে বর্ষা কালে মশার সমস্যা বেশ গুরুতর। তবে বাগানে যদি লাগাতে পারেন কিছু গাছ, তবে বাড়িতে মশার সমস্যা দূরে রাখতে পারবেন। জেনে নিন এমনই বেশ কিছু গাছের কথা।
নানা উদ্যোগ, নানা কার্যক্রম। সরকারি হোক বা বেসরকারি। উদ্দেশ্য মশা তাড়ানো। পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা মশার উপদ্রব কমাতে রাসায়নিক স্প্রে ব্যবহার কমানোর পরামর্শ দেন। পরিবর্তে অন্দরে ভেষজ গাছ লাগানোর তাগিদ দেন। কেননা, এসব ভেষজ গাছ মশা তাড়াতে সক্ষম। এতে ঘরের সৌন্দর্য বর্ধনের পাশাপাশি মশার উপদ্রবও অনেকাংশে কমে আসবে।
1 ল্যাভেন্ডার : চমৎকার ভেষজ ল্যাভেন্ডার। ল্যাভেন্ডারের সুবাস পছন্দ করেন না এমন মানুষ নেই। স্কিন টনিক হিসেবেও দারুণ। অন্দরের  সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও দারুণ কার্যকরী। উপকারি এই ভেষজ গাছটি মশা আটকে রাখতে সাহায্য করে। এর সুগন্ধি মশার বেশ অপছন্দ। তাই বাগানে বা ইনডোর প্লান্টে ল্যাভেন্ডার গাছ লাগান। মশা কমবে। ল্যাভেন্ডার স্প্রে ও মশা কমায়।
2 সাইট্রোনেলা : দেখতে দারুণ। এটি ঘাস প্রজাতির গাছ। বাগানে বেশ মানায়। ৫-৬ ফুট উচ্চতার হয়ে থাকে। এর সুগন্ধি বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত। এর পাতার তীব্র গন্ধে মশা ধারে কাছে ঘেঁষে না। গাছটি বারান্দা বা ছাদে লাগাতে পারেন।
3 গাঁদা ফুল : গাঁদা ফুলের পাপড়ি এবং পাতায় লুকানো আছে অ্যান্টিসেপটিক ওষুধ। শুধু তাই নয়, এর পরাগ ও পাপড়ি থেকে আসা সুবাস মশা তাড়ায়। গাঁদা ফুলের কয়েকটি চারা বাড়ির বারান্দায় রেখে দিন। তাতে করে বাড়ির সৌন্দর্য তো বাড়াবেই, পাশাপাশি মশার উপদ্রবও কমবে। আর তরতাজা ফুলের সুবাস তো পাচ্ছেনই।
4 তুলসী গাছ : তুলসী মশা তাড়ানোর উপকারী উদ্ভিদ। তবে অনেকেই জানেন না যে, মশার কামড়ের স্থানে আস্তে আস্তে তুলসী পাতা ঘষলে চুলকানি থেকে মুক্তি মেলে। তুলসী পাতায় অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি যৌগ ইউজেনল থাকে।
5 ক্যাটনিপ : পোকা-মাকড় দমনে এর জুড়ি নেই। এর নেপেটাল্যাকটোন প্রাকৃতিক রাসায়নিক। যা মশা এবং পোকা-মাকড়ের জম। ক্যাটনিপ গাছ মশার ওষুধ ডিইইটি থেকেও দশগুণ বেশি কার্যকর। মশা তাড়াতে উপকারী এই ভেষজ গাছটির সাধারণ সুবাসই যথেষ্ট।
6 পুদিনা পাতা : কটুগন্ধের ঔষধি হিসেবে পরিচিত পুদিনা পাতা। পুদিনা পাতায় খুঁজে পাওয়া তেল মশার সুরক্ষায় সর্বোচ্চ মাত্রা প্রদান করে। বারান্দায় বা রান্নাঘরে এমনিতেই কয়েকটি গাছ লাগিয়ে রাখতে পারেন। মশক নিধনে কয়েকটি পাতা ত্বকে লাগিয়ে নিতে পারেন।
7 পেপারমিন্ট ট্রি : পেপারমিন্ট বা মেন্থলের তাজা সুগন্ধ মশা তাড়ানোর দারুণ ভেষজ। এটি মশার প্রাকৃতিক কীটনাশক। বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরে মেন্থল লাগিয়ে নিলে তা মশার কামড় থেকে বাঁচায়। মেন্থল তেল ও পানির মিশ্রণ মশাপ্রবণ জায়গায় ছিটিয়ে দিলে উপকার পাবেন।
8 বাসিল পাতা : মুখরোচক খাবারের সঙ্গে শুকনো মসলা হিসেবে বাসিল পাতার ব্যবহার হলেও মূলত বাসিল একটি ভেষজ গাছ। ঘরের আঙিনা, বাগানে বা ছাদে অন্যান্য গাছপালার সঙ্গে এটা লাগিয়ে রাখতে পারেন। এর তীব্র ভেজা গন্ধ পোকা-মাকড়কে ঘরবাড়ি থেকে দূরে রাখে।

About Health Care Medicine

Check Also

Foods that prevent diabetes

Foods that prevent diabetes যে খাবারগুলো ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে

Foods that prevent diabetes যে খাবারগুলো ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে শরীরে অগ্ন্যাশয় যদি যথার্থ ইনসুলিন তৈরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.